শুরু করা

মোবাইল ডিভাইসের জন্য সাইট তৈরি করার সময় কোন তিনটি বিষয় আমাকে মনে রাখতে হবে?

১. গ্রাহকদের জন্য সাইটটিকে সহজ করে তোলা।

আপনার সাইটের মাধ্যমে দর্শকদের যা উদ্দেশ্য সেগুলি পূরণ করতে সাহায্য করুন। তারা হয়ত আপনার ব্লগ পোস্ট পড়ে আনন্দ পেতে চান, আপনার রেস্তোরাঁর ঠিকানা জানতে চান অথবা আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে পর্যালোচনা পড়তে চান। Walgreens-এর GVP ও ই-কমার্সের মুখ্য টেকনোলজি অফিসার অভি ধর জানান, "মোবাইলে আমরা যা করি তার সাহায্যে গ্রাহকদের জীবন আরও সহজ করে তোলাই হল আমাদের উদ্দেশ্য।"

কাজের পরিকল্পনা, সাইটে আসা ও কাজ সম্পূর্ণ করার মধ্যে দিয়ে গ্রাহককে তার সাধারণ কাজগুলি সবচেয়ে সহজে করতে দেওয়ার জন্য আপনার সাইটকে ডিজাইন করুন।

পরিকল্পনা থেকে কাজ সম্পূর্ণ করা পর্যন্ত গ্রাহক সম্ভাব্য যে ধাপগুলি নিতে পারেন সেগুলির একটি খসড়া তৈরি করুন, যাতে মোবাইল ডিভাইসে সেগুলি সহজে সম্পূর্ণ করা যায়। ব্যবহারকারীর ইন্টার‍্যাকশনের প্রয়োজনীয়তা কম করতে তার অভিজ্ঞতাকে আরও সরল করে তোলার চেষ্টা করুন। এই উদাহরণে: (১) গ্রাহক ল্যাম্প কেনার জন্য সার্চ করেন এবং একটি সাইটে ক্লিক করেন, তারপরে (২) বেশ কয়েকটি ল্যাম্প দেখে (৩) পছন্দের ল্যাম্পটি কেনেন।

২. মোবাইলে কত সহজে আপনার গ্রাহকেরা তাদের সাধারণ কাজ সম্পূর্ণ করতে পারছেন তার মাধ্যমে সাইটের উপযোগিতা মাপা।

মোবাইল সাইট তৈরি করার জন্য কোন বিষয়কে প্রাধান্য দিতে হবে তা জানা দরকার। মোবাইলে আপনার গ্রাহকদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও সাধারণ কাজ কোনগুলি তা জেনে শুরু করুন। এই কাজগুলিকে সহজে করতে দিতে পারাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, তাই গ্রাহকেরা কত ভালোভাবে তাদের উদ্দেশ্য পূরণ করতে পারছেন তার উপর নির্ভর করে আপনার মোবাইল সাইটের উপযোগিতা মাপা হয়। সাইটের ডিজাইনের মাধ্যমে সেটির ব্যবহার সহজ করে তোলার অনেক উপায় আছে। ইন্টারফেসের সঙ্গতি ও সব প্ল্যাটফর্মে সামঞ্জস্যপূর্ণ অভিজ্ঞতা প্রদান করার দিকে নজর দিন।

MediaPost-এর মতে, "কেনাকাটার জন্য যারা মোবাইল সাইট ব্যবহার করেন তারা সাইটটি কত সহজে ব্যবহার করা যাচ্ছে তার উপর খুব গুরুত্ব দেন, ৪৮% উত্তরদাতা মনে করেন যে সেটি সাইটের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কোয়ালিটি।"

৩. সব ডিভাইসের জন্য সামঞ্জস্যপূর্ণ টেমপ্লেট, থিম অথবা ডিজাইন (যেমন প্রতিক্রিয়াশীল ওয়েব ডিজাইন ব্যবহার করা) বেছে নেওয়া।

ব্যবহারকারী ডেস্কটপ কম্পিউটার, ট্যাবলেট বা মোবাইল ফোন যাই ব্যবহার করুন না কেন, "প্রতিক্রিয়াশীল ওয়েব ডিজাইন" বা RWD-এর ক্ষেত্রে কোনও পৃষ্ঠা একই ইউআরএল ও একই কোড ব্যবহার করে – সেটি শুধু স্ক্রিন সাইজের উপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হয় বা "প্রতিক্রিয়া" জানায়। Google অন্য ডিজাইনের পরিবর্তে RWD-এর ব্যবহারকে সাজেস্ট করে। RWD-এর একটি বড় সুবিধা হল যে আপনার সাইটের দুটি ভার্সনের পরিবর্তে একটি থাকলেই চলে (অর্থাৎ, আপনাকে ডেস্কটপ সাইটের জন্য www.example.com এবং সেটির মোবাইল ভার্সনের জন্য m.example.com তৈরি করার পরিবর্তে ডেস্কটপ ও মোবাইল দর্শকদের জন্য শুধু www.example.com তৈরি করলেই চলে)।

একই ইউআরএল ও কোড ব্যবহার করে একটি প্রতিক্রিয়াশীল সাইট নিজেকে বিভিন্ন স্ক্রিন সাইজ অনুযায়ী পরিবর্তন করে। উপরের তিনটি ডিভাইসেই শুধু www.example.com (মোবাইল পৃষ্ঠার জন্য m.example.com, ট্যাবলেটের জন্য t.example.com ইত্যাদির পরিবর্তে) খোলা আছে।

"RWD ব্যবহার করার মাধ্যমে Baines & Ernst একাধিক ওয়েবসাইট তৈরি না করেই বিভিন্ন স্ক্রিন সাইজে গ্রাহকদের জন্য অভিজ্ঞতাকে অপ্টিমাইজ করতে পেরেছে।" কোম্পানির প্রতিনিধিরা আরও দেখেন, "দর্শকেরা প্রতিবার সাইটে আসার পরে ১১% বেশি পৃষ্ঠা দেখেছেন এবং মোবাইলে ৫১% বেশি কনভার্সন হয়েছে।"

প্রোডাক্ট কেনা, ব্যবসার প্রতিনিধিকে কল করা অথবা নিউজলেটারের জন্য সাইন-আপ করার মতো ব্যবসার পক্ষে অভিপ্রেত কোনও অ্যাকশন নিলে সেটি "কনভার্সন" হিসেবে ধরা হয়।

প্রতিক্রিয়াশীল ওয়েব ডিজাইন কীভাবে প্রয়োগ করতে হয় সেই বিষয়ে আরও জানতে ওয়েবের মূল নীতিতে ডেভেলপারদের জন্য কন্টেন্ট দেখুন। ডেস্কটপ, ট্যাবলেট ও মোবাইল ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের প্রয়োগের ক্ষেত্রে সুবিধা ও অসুবিধাগুলি জানতে চাইলে, একাধিক স্ক্রিন ব্যবহার করেন এমন গ্রাহকের জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করা পড়ুন।

অনভিজ্ঞ ব্যক্তিদের কোন তিনটি ভুল এড়িয়ে চলা উচিত?

প্রথম ভুল - মোবাইল গ্রাহকদের কথা ভুলে যাওয়া।

ভাল মোবাইল সাইট কার্যকরী হয় – এটির সাহায্যে দর্শকেরা বিভিন্ন কাজ সম্পূর্ণ করতে পারেন, যেমন একটি আকর্ষণীয় নিবন্ধ পড়া বা স্টোরের লোকেশন জানা। শুধু মোবাইলের জন্যই ফর্ম্যাট করা সাইট (যেটি মোবাইলে খুব সুন্দর দেখতে লাগে) তৈরি করার প্রবণতা এড়িয়ে যান, কারণ এটি আর যথেষ্ট কার্যকরী হয় না। এর পরিবর্তে, একটি মোবাইল-ফ্রেন্ডলি সাইট (যেটি গ্রাহকদের পক্ষে খুব উপযোগী ও তাদের সাধারণ কাজগুলি সম্পূর্ণ করার জন্য অপ্টিমাইজ করা) তৈরি করুন।

দ্বিতীয় ভুল - ডেস্কটপ সাইটের থেকে আলাদা ডোমেন, সাবডোমেন বা সাবডিরেক্টরিতে মোবাইল সাইট তৈরি করা।

Google একাধিক মোবাইল সাইট কনফিগার করতে দিলেও, আলাদা মোবাইল ইউআরএল রক্ষণাবেক্ষণ ও আপডেট করার জন্য প্রচুর সময় লাগে এবং প্রযুক্তিগত সমস্যা দেখা দিতে পারে। আপনি প্রতিক্রিয়াশীল ওয়েব ডিজাইন (RWD) ব্যবহার করে আপনার কাজকে সহজ করে তুলতে পারেন এবং একই ইউআরএলে ডেস্কটপ ও মোবাইল সাইট দেখাতে পারেন! কনফিগারেশন হিসেবে Google, প্রতিক্রিয়াশীল ওয়েব ডিজাইন সাজেস্ট করে।

তৃতীয় ভুল - অন্যদের থেকে অনুপ্রেরণা না নিয়ে একা একা কাজ করে যাওয়া।

একই বিষয়ের বা প্রতিযোগীর সাইট দেখে অনুপ্রেরণা পান ও পেশাদার পদ্ধতি সম্পর্কে জানুন। যেহেতু মোবাইল সাইট আপনার আগেও অনেকে তৈরি করেছেন, তাই তাদের থেকে আপনি শেখার সুযোগ নিতে পারেন। The Mobile Playbookএকাধিক স্ক্রিন ব্যবহার করার ফলে যে সাফল্যের গল্প Google সংগ্রহ করেছে সেগুলি থেকেও আপনি অনেক কিছু জানতে পারবেন।

ডেভেলপারের সাথে কাজ করার সময় আমাকে কী কী বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে?

ডেভেলপারের সাথে একযোগে কাজ করে মোবাইল-ফ্রেন্ডলি সাইট তৈরি করার সময় ভাল ফলাফল পেতে নিম্নলিখিত ধাপগুলি অনুসরণ করুন।

১. ডেভেলপারের রেফারেন্স ও মোবাইল ওয়েবসাইটের পোর্টফোলিও দেখা।

প্রতিক্রিয়াশীল ওয়েব ডিজাইন (RWD) সম্পর্কে আপনার ডেভেলপারের অভিজ্ঞতা আছে কিনা জিজ্ঞাসা করুন। আপনার একটি ডেস্কটপ সাইট থাকলে, ডেভেলপারের ডেস্কটপ সাইটকে প্রতিক্রিয়াশীল সাইটে রূপান্তরিত করার অভিজ্ঞতা আছে কিনা জানুন। যেসব সাইট তিনি তৈরি করেছেন সেগুলি দেখুন। ডেভেলপারের রেফারেন্স ও আগের গ্রাহকদের সাথে কথা বলে তার ব্যাপারে তাদের মতামত জানুন। Google-এর PageSpeed ইনসাইট-এর মতো টুল ব্যবহার করে আপনি ডেভেলপারের পোর্টফোলিও পরীক্ষা করতে পারেন। PageSpeed ইনসাইট থেকে কী কারণে পৃষ্ঠা লোড হতে দেরি হচ্ছে বা পৃষ্ঠাটি যথেষ্ট ব্যবহারযোগ্য হচ্ছে না তা জানা যায়।

পৃষ্ঠার স্পিড ও ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা দুটির জন্যই ওয়েবের মূল নীতি, PageSpeed ইনসাইট-এর মোবাইল পরীক্ষা পাস করে।

২. আপনার ডেভেলপার মোবাইল গ্রাহকের প্রয়োজনীয়তা বুঝতে পারছেন কিনা তা দেখা।

ডেভেলপারকে আপনার ব্যবসার সম্পর্কে জানান, মোবাইল সাইটের মাধ্যমে কোন সাধারণ কাজগুলি অপ্টিমাইজ করতে চান সেটি বলুন। মোবাইল গ্রাহকের প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী তিনি সাইটটি তৈরি করছেন কিনা দেখুন।

৩. সাইট যাতে দ্রুত লোড হয় সেটি ডেভেলপারকে নিশ্চিত করতে বলা।

ব্রাউজারে পৃষ্ঠাগুলি লোড হওয়ার জন্য যেন গ্রাহককে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে না হয়। PageSpeed ইনসাইট (উপরে উল্লেখ করা টুল) এবং পৃষ্ঠাকে কীভাবে দ্রুত লোড করা যায় সেই সম্পর্কে আপনার ডেভেলপার জানেন কিনা জিজ্ঞাসা করুন। WebPagetest-এ আপনার প্রতিযোগীর পৃষ্ঠাগুলি যত দ্রুত "রেন্ডার" হচ্ছে আপনার পৃষ্ঠাগুলিও তত দ্রুত লোড করতে হবে বলে চুক্তিতে উল্লেখ করতে পারেন। অথবা, সেটি সম্ভব না হলে, PageSpeed ইনসাইট-এর ফলাফলে যাতে আপনার সাইটের জন্য সবুজ টিক চিহ্ন থাকে ও "ঠিক করা প্রয়োজন"-এর মধ্যে কোনও সমস্যার উল্লেখ না থাকে তা নিশ্চিত করতে বলুন। (পৃষ্ঠাগুলির জন্য সবুজ টিক চিহ্ন না দেখালে সেই সমস্যা সমাধান করতে প্রয়োজনীয় খরচ ও কী উপকার হতে পারে সেই বিষয়ে আপনার ডেভেলপারের সাথে আলোচনা করে নিন।) মোবাইল পৃষ্ঠার স্পিড সম্পর্কে আরও জানতে "মোবাইল ওয়েবসাইটের পারফর্ম্যান্স সংক্রান্ত সমস্যার দ্রুত সমাধান" ভিডিওটি দেখুন।

৪. ডেভেলপারকে ওয়েব অ্যানালিটিক্স ইনস্টল করতে বলা।

আপনার সাইটের পারফর্ম্যান্স সম্পর্কে সামগ্রিক তথ্য পেতে Google Analytics-এর মতো ওয়েব অ্যানালিটিক্স ইনস্টল করুন।

৫. Google-এর ওয়েবমাস্টারের জন্য নির্দেশিকা সম্পর্কে আপনার এবং আপনার ডেভেলপাররের জানা আছে কিনা দেখা।

আপনার সাইটের কন্টেন্ট Google কীভাবে খোঁজে, প্রসেস করে ও র‍্যাঙ্ক করে তা এই নির্দেশিকা থেকে জানা যায়।

৬. প্রাথমিক লঞ্চের পরে আপনার মোবাইল সাইটকে আরও উন্নত করার বিষয়টি চুক্তিতে অন্তর্ভুক্ত করা।

আপনার সাইটকে আরও ভাল করতে আপনি গ্রাহকদের থেকে মতামত ও ওয়েব অ্যানালিটিক্স থেকে ডেটা সংগ্রহ করে প্রয়োগ করতে পারেন।

Google AdWords-এর মোবাইল ও একাধিক স্ক্রিনের সাইটের জন্য সাজেস্ট করা ভেন্ডরের সূচি দেখতে পারেন। মোবাইল ওয়েবসাইট তৈরি করা প্রসঙ্গে আরও জানতে, মোবাইল SEO সম্পর্কে আমাদের ডকুমেন্টেশন দেখুন।

Send feedback about...

সার্চ
সার্চ